কাপ্তাই লেক | Kaptai Lake 16/04/2021




Photo Credit :- VromonBuzz

 

রাঙ্গামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলা, প্রকৃতির স্বর্গীয় সৌন্দর্যের সাথে পার্বত্য চট্টগ্রামের গোড়ায় উঁচুতে অবস্থিত। কাপ্তাই উপজেলার অনন্য পর্বত, হ্রদের জল এবং চিত্তাকর্ষক সবুজ আপনাকে মুগ্ধ করবে। ১১০০০ বর্গকিলোমিটারের বেশি প্রসারিত কৃত্রিম হ্রদটি দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম বৃহত্তম। কর্ণফুলি পানির বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য ১৯৫৬ সালে কর্ণফুলি নদীর উপর কাপ্তাই বাঁধ নির্মাণ করা হলে রাঙামাটি জেলার ৫৪ হাজার একর কৃষি জমি ডুবে যায় এবং এই অপরুপ সৌন্দর্য্যের হ্রদ সৃষ্টি হয়।

 

কাপ্তাই হ্রদ মূলত কর্ণফুলী হ্রদের আঞ্চলিক নাম। উঁচু-নিচু পাহাড়-পর্বত, পাহাড়ি ঝরনাধারা, আঁকাবাঁকা পাহাড়ি রাস্তা, অথৈ পানি আর সবুজের সমারোহ, গাঢ়-সবুজ বন, গাছ-গাছালি ফুল-ফল আর উপজাতিদের জীবনধারা কাপ্তাই লেকের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। তাছাড়া জলবিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যে কাপ্তাই তৈরি হলেও মৎস্য উৎপাদন, দেশি-বিদেশি মুদ্রা উপার্জন, স্থানীয়দের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও জীবন-জীবিকা থেকে শুরু করে দেশের সামগ্রিক মৎস্যক্ষেত্রে এর গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে।

 

কিভাবে যাবেন?

বান্দরবান থেকে কাপ্তাই যেতে চাইলে রোয়াংছড়ি বাস স্ট্যান্ড থেকে রাঙ্গামাটি গামী বাসে করে গিয়ে বড়ইছড়ি নেমে সিএনজি দিয়ে কাপ্তাই যেতে পারবেন। রাঙ্গামাটি থেকে সড়ক পথে বাসে কিংবা সিএনজিতে অথবা ট্রলার নৌকায় কাপ্তাই লেক হয়ে কাপ্তাই বাজার যাওয়া যায়।

 

কোথায় থাকবেন?

কাপ্তাইয়ে রাত্রি যাপনের জন্য এখনো তেমন ভালো মানের বাণিজ্যিক হোটেল-মোটেল গড়ে উঠেনি। রাঙ্গামাটি থেকে কাপ্তাইয়ের দূরত্ব কম হওয়ায় আপনি চাইলে দিনে দিনে ঘুরে রাতে রাঙামাটিতে ফিরে আসতে পারেন, যদি আপনার ট্যুর প্ল্যান সেভাবে সাজানো থাকে। রাঙামাটিতে বিভিন্ন পয়েন্টে আপনি বেশকিছু হোটেল পাবেন, যেমনঃ  রিজার্ভ বাজার , দোয়েল চত্বর, রাঙামাটি মেইন বাজার (বনরূপা)।  নিচে কিছু হোটেলের নাম দেওয়া হলো। হোটেল সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে বা অনলাইনে বুক করতে হোটেলের নামটিতে ক্লিক করুন।

.     Hotel Square Park.
.     Hotel Rajmahal International.
.     Hotel Green Castle.
.     Needs Hill View.

Book Now

 

আর যদি একান্তই কাপ্তাইয়ে রাত কাটানোর ইচ্ছা থাকে তাহলে আগে থেকেই কাপ্তাইয়ের সরকারি রেস্ট হাউস কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে আসা উত্তম। এছাড়াও সংশ্লিষ্ট সরকারি অফিসের অনুমতি সাপেক্ষ্যে সেনাবাহিনী, পিডিবি, পানি উন্নয়ন বোর্ড এবং বন বিভাগের রেস্ট হাউসগুলোতে কম খরচে রাত্রি যাপন করা যায়। লেক প্যারাডাইস পিকনিক স্পটেও রাত্রী যাপনের সুযোগ রয়েছে তবে এজন্য বাড়তি অর্থ গুনতে হতে পারে। রাঙ্গামাটি কাপ্তাই এর কাছে হওয়ায় কিংবা আপনার ট্যুর প্ল্যান সেভাবে হলে রাঙ্গামাটি থাকতে পারেন। 

 

কোথায় খাবেন?

কাপ্তাই লেকে মাঝখানে ছোট ছোট দ্বীপে কিছু রেস্তোরাঁ গড়ে উঠেছে চাইলে সেখান থেকে দুপুর কিংবা প্রয়োজনীয় খাবার সংগ্রহ করে নিতে পারেন। কাপ্তাই এর কাছে আছে বেরাইন্যে লেক শোর ক্যাফে, জুম রেস্তোরা, প্যারাডাইস ক্যাফে ইত্যাদি। কিংবা নিজের পছন্দের খাবার খেতে ঘুরে আসতে পারেন নৌবাহিনীর ঘাঁটি সংলগ্ন ভাসমান রেস্টুরেন্ট থেকে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এই রেস্টুরেন্ট খোলা থাকে।